বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ১১:৩৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
নওগাঁয় বিস্কুট খেয়ে দুই শিশু কন্যার মৃত্যু- মুক্তিযুদ্ধের চেতনা টিভি জাফলংয়ে কথা কাটাকাটি থেকে মারামারি অতঃপর ঘুষিতে প্রাণ গেল শ্রমিকের – মুক্তিযুদ্ধের চেতনা টিভি নওগাঁয় কোটা বিরোধী আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের মাঠে নামতেই দেয়নি ছাত্রলীগ- মুক্তিযুদ্ধের চেতনা টিভি কোটা বাতিল আন্দোলনের যৌক্তিকতা নেই: প্রধানমন্ত্রী – মুক্তিযুদ্ধের চেতনা টিভি বীর মুক্তিযোদ্ধার পৈত্রিক সম্পত্তি সরকারিভাবে একোয়ারের নোটিশ, দিশেহারা অসুস্থ বীর মুক্তিযোদ্ধার পরিবার – মুক্তিযুদ্ধের চেতনা টিভি রাজশাহীতে মুক্তিযোদ্ধা ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত – মুক্তিযুদ্ধের চেতনা টিভি চলে গেলেন না ফেরার দেশে বাংলাদেশের সাবেক ক্রিকেটার রাজশাহীর কৃতি সন্তান খালেদ মাসুদ পাইলটের’ মা নার্গিস আরা বেগম- মুক্তিযুদ্ধের চেতনা টিভি’ বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিটি অনুমোদন – মুক্তিযুদ্ধের চেতনা টিভি বাবুগঞ্জে এস এস সি কৃতকার্য ছাত্রী ধর্ষিতা অবশেষে পুত্র সন্তানের মা হলেন – মুক্তিযুদ্ধের চেতনা টিভি ভালুকায় হঠাৎ বৃষ্টিতে পৌরসভার কয়েকটি ওয়ার্ডে পানি জমে জনদুর্ভোগ – মুক্তিযুদ্ধের চেতনা টিভি

যশোরে ঐতিহাসিক যশোর মুক্ত দিবস পালিত -মুক্তিযুদ্ধের চেতনা টিভি

সংবাদ দাতার নাম
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ৬১ বার পড়া হয়েছে

৬ই ডিসেম্বর ঐতিহাসিক যশোর মুক্ত দিবস

মোঃ সবুজ হোসেন: যশোর সদর উপজেলা প্রতিনিধি

মুক্তিযুদ্ধের চেতনা টিভি

আজ ৬ই ডিসেম্বর যশোর মুক্ত দিবস। ১৯৭১ সালের ৬ই ডিসেম্বরে যশোর সর্বপ্রথম শত্রুমুক্ত হয়। যশোর মুক্ত দিবস উপলক্ষে যশোর টাউন হল ময়দানে বিভিন্ন স্কুল-কলেজ এবং বিভিন্ন স্তরের মানুষ আনন্দ র‍্যালি নিয়ে আসে। যশোর টাউন হল ময়দান লোকে পরিপূর্ণ ছিলো। এবং উক্ত স্থানে অনেক মুক্তিযোদ্ধারা উপস্থিত ছিলেন। আরো উপস্থিত ছিলে যশোর জেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের নেতৃবৃন্দ । আজ এই দিনটি অনেক আনন্দের সাথে পালিত হয়েছে।

ঐতিহাসিক যশোর মুক্ত দিবস আজ (৬ ডিসেম্বর) । ১৯৭১ সালের এই দিনে পাক হানাদার বাহিনীর কবল থেকে মুক্ত হয়েছিল প্রাচীনতম এই যশোর জেলা।এদিন দুপুরের পরপরই যশোর সেনানিবাস ছেড়ে পালিয়ে যায় পাক হানাদার বাহিনী। প্রথম শত্রুমুক্ত হয় যশোর জেলা। যশোরেই প্রথম উঠেছিল বিজয়ী বাংলাদেশের রক্ত সূর্যখচিত গাঢ় সবুজ পতাকা।

মুক্তিযুদ্ধের সময়ের বাংলাদেশ লিবারেশন ফোর্স-মুজিব বাহিনীর (বিএলএফ) বৃহত্তর যশোর জেলার (যশোর, ঝিনাইদহ, মাগুরা ও নড়াইল) উপ-অধিনায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা রবিউল আলম জানান, ৭১ সালের ০৩, ৪ ও ৫ ডিসেম্বর যশোর অঞ্চলের বিভিন্নএলাকায় পাক যশোরেই প্রথম উঠেছিল বিজয়ী বাংলাদেশের রক্ত সূর্যখচিত গাঢ় সবুজ পতাকা।

 

মুক্তিযুদ্ধের সময়ের বাংলাদেশ লিবারেশন ফোর্স-মুজিব বাহিনীর (বিএলএফ) বৃহত্তর যশোর জেলার (যশোর, ঝিনাইদহ, মাগুরা ও নড়াইল) উপ-অধিনায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা রবিউল আলম জানান, ৭১ সালের ০৩, ৪ ও ৫ ডিসেম্বর যশোর অঞ্চলের বিভিন্নএলাকায় পাক হানাদার বাহিনীর সাথে মুক্তিযোদ্ধাদের প্রচন্ড যুদ্ধ হয়।

এক পর্যায়ে যশোর সেনানিবাস ছেড়ে তারা ছিন্ন-ভিন্ন হয়ে খুলনার গিলাতলা সেনানিবাসের দিকে পালিয়ে যেতে থাকে। পলায়নকালে ৫ ও ৬ ডিসেম্বর শহরতলীর রাজারহাটসহ বিভিন্ন এলাকায় মুক্তিবাহিনীর সঙ্গে তাদের গোলাগুলি শুরু হয়।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

আজকের নামাজের সময়সুচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৩:৫৭ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০৮ অপরাহ্ণ
  • ১৬:৪৩ অপরাহ্ণ
  • ১৮:৫৩ অপরাহ্ণ
  • ২০:১৭ অপরাহ্ণ
  • ৫:১৯ পূর্বাহ্ণ
©2020 All rights reserved
Design by: POPULAR HOST BD
themesba-lates1749691102